ময়ূরকণ্ঠী ক্রাইম রিপোর্ট :

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে হয়বতপুর ডাঙ্গাপাড়ায় হতদরিদ্র দিনমজুর রিক্সাচালক এনতাজ আলীর বাড়ীঘর দুই দফায় ভেঙ্গে উচ্ছেদ করে ভিটামাটি দখলের পায়েতার করেছে এলাকার কথিত নামধারী নাসিমা বেগম। এম কে টেলিভিশন ডট নেটের পর্যাবেক্ষক দলের তথ্য ও ভিডিও চিত্র নিয়ে দেখুন একটি ক্রাইম রিপোর্ট-
২৯ মার্চ সকাল আনুমানিক সাড়ে ৯টায় নাসিমা বেগম তার দলবল নিয়ে এনতাজ আলীর বাড়ীঘর ভাঙ্গচুরের মধ্যদিয়ে জিনিসপত্র লুটপাট ও মারধর করে তাড়িয়ে দেয়। ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়লে পার্বতীপুর মডেল থানার এস আই মানিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে নাসিমার বাড়ী থেকে মালামালগুলো উদ্ধার করে এনতাজকে বুঝিয়ে দেয়। এরপর মডেল থানায় বিকেল ৫ টায় স্থানীয় মেম্বার নূর ইসলামসহ এলাকার বিশিষ্ট জনের শালিসি মিমাংশার মাধ্যমে এনতাজকে একইস্থানে ঘর বাড়ি তৈরী করার অনুমুতি দেয়া হয়।
৩১ মার্চ এনতাজ ভাঙ্গা ঘরবাড়ী মেরামত করতে গেলে পূনরায় কথিত নাসিমা বেগম দলবল নিয়ে লাঠিসহ ধারলো অস্ত্র দিয়ে তাদেরকে আক্রমণ করলে প্রাণের ভয়ে পালিয়ে যায়।
এম কে টেলিভিশন ডট নেটের পর্যাবেক্ষক দল তথ্য সংগ্রহের জন্য গেলে নাসিমা বেগম ও তার মেয়ে পুতুল মুল ক্যামেরা ও পর্যবেক্ষকদলকে দেখতে পেয়ে ভিডিও ধারণে বাঁধা দেয় ক্ষিপ্ত হয়ে গালাগালী করতে করতে দ্রুত ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে । কিন্তু পর্যাবেক্ষক দলের গোপন ক্যামেরায় যা ধারণ করা হয় –
গ্রামবাসী জানান নাসিমা কোন প্রকার জমির মালিকানা পায় না। সেই মহিলা প্রভাবশালী ও ক্ষমতাশীল ব্যক্তিদের নাম ভাঙ্গিয়ে এলাকার বিভিন্ন খারাপ কাজের সঙ্গে জড়িত। এছাড়াও সে মামলাবাজ ও বহুবিবাহে আসক্ত একজন মহিলা।

এব‌্যাপারে বিষয়টি মামলার প্রক্রিয়াধীন অবস্থায় আছে বলে পার্বতীপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল আলম জানান।

mktelevision.net/ আল মামুন/ইফতেখার/মোস্তাফিজুর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*